স্পোর্টস ডেস্ক : ফিটনেস ইস্যুতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে আসন্ন সিরিজে বাদ পড়েছেন রোহিত শর্মা। সহ-অধিনায়ককে টেস্টের সঙ্গে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টিতেও বিবেচনা না করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ভাষ্য, খেলার মতো ফিটনেসে ঘাটতি এবং চোটে আছে তার। বিষয়টি হজম করতে পারেনি আইপিএলে রোহিতের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। বিসিসিআইকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করে বিতর্ক বাধিয়ে বসে আছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

গত ২৩ অক্টোবর চেন্নাই সুপার কিংস ম্যাচের আগে মুম্বাই ঘোষণা করে, ১৮ অক্টোবর কিংস ইলেভেন ম্যাচে বাঁ-পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছেন অধিনায়ক রোহিত। তিনি দ্রুতই সুস্থ হয়ে উঠছেন। বিসিসিআই ব্যাপারটি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে বলেও জানানো হয় বিবৃতিতে।

চোট কতটা গুরুতর সেটি খোলাসা না করে সোমবার অজি সিরিজের সব ফরম্যাট থেকে বাদ দেয়া হয় রোহিতকে। কোহলির ডেপুটি আসলে কোন ধরনের চোটে ভুগছেন সেবিষয়ে সঠিক তথ্য না পাওয়ায় বিসিসিআইয়ের নির্বাচকদের এক হাত নিয়েছেন সাবেক অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার। স্টার স্পোর্টসের কাছে প্রশ্ন তুলেছেন দল নির্বাচন নিয়েও।

‘আমরা টেস্ট ম্যাচ নিয়ে কথা বলছি, যেটা শুরু হতে এখনো দেড়মাস বাকি। যদি কোনো সমস্যা থেকে থাকে, তাহলে সবাই মিলে সেটি কাটিয়ে উঠতে তাকে সাহায্য করবে। দেখছি সে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের নেটে ব্যাটিং অনুশীলন করছে। সত্যি বলতে আমি জানি না এটা কেমন ধরনের চোট!’

‘আমি মনে করি এখানে কিছুটা স্বচ্ছতা থাকা উচিৎ, খানিকটা খোলাসা করা উচিত। যদি কোনো সমস্যা থাকেই, তাহলে সবাই তাকে সে ব্যাপারে সাহায্য করবে।’

গাভাস্কারের বক্তব্যকে সত্যি প্রমাণ করতেই যেন কিছুক্ষণ পরেই টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সেখানে দেখা যাচ্ছে সাবলীলভাবে ব্যাট করছেন রোহিত, খেলছেন বড় সব শট। রোহিতের সাবলীল ব্যাটিং দেখেই উস্কে গেছে বিতর্ক।

বিতর্ক উস্কেছে টেস্ট দলে মায়াঙ্ক আগারওয়ালের নাম থাকায়ও। চোটের কারণে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের শেষ দুটি ম্যাচ খেলতে পারেননি ডানহাতি ব্যাটসম্যান। অথচ তাকে দলে রেখে রোহিতকে বাদ দেয়ায় নানা প্রশ্ন উচ্চকিত হচ্ছে।

 

 

নিউজ ডেস্ক : দুর্যোগের সময় ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হলে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেয়া হবে, তবে ষড়যন্ত্রের বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা বিভাগের নয়টি জেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য প্রদানকালে এই আহ্বান জানান তিনি। এ সময় তিনি আরও ৫০ লক্ষ মানুষকে রেশন কার্ড দেয়ার কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু অনিয়মের কারণে ১০ টাকার চাল বিক্রি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও শিগগির তা শুরু করা হবে।

এছাড়া অর্থনৈতিক মন্দার মাঝেও দেশের মানুষকে রক্ষা করতে সঠিক পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে সরকার বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। আলোচনার মাধ্যমে সুরক্ষা নিশ্চিত করে কারখানা চালু রাখা ও কৃষিকাজ চালিয়ে যাবার পরামর্শ দেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী রমজানে মানুষকে ঘরে বসে তারাবি নামাজ পড়ার আহ্বান জানান। করোনা সন্দেহ হলে পরীক্ষা করা এবং কেউ আক্রান্ত হলে তার সাথে অমানবিক আচরণ না করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, করোনা মোকাবেলায় প্রায় এক লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে এবং সেই অনুসারে কাজও শুরু হয়েছে।

যাদের আসলেই প্রয়োজন, তারা যেন এই সহযোগিতা পান সেজন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে তালিকা করতে বলা হয়েছে। তবে এই ত্রাণ নিয়ে কেউ দুর্নীতি করবেন না। ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি সহ্য করা হবে না।

নিউজ ডেস্ক : নতুন করে দেশে ১১২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আর গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ১ জন।

এনিয়ে দেশে করোনা মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩০ জন আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২১ জন।

আজ বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদফতর আয়োজিত এক অনলাইন ব্রিফিং-এ এমন তথ্য দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালেক।

এছাড়া নতুন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হওয়া ১১২ জনের মধ্যে ১০ বছরের কমবয়সী ৩ শিশু রয়েছে বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর।

অনলাইন ব্রিফিং-এ এমন তথ্য দেন আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি জানান, নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ১১২ জনের মধ্যে ১০ বছরের নিচে রয়েছে ৩ জন, ১১-২০ বছর বয়সী রয়েছেন ৯ জন, ২১-৩০ বছর বয়সী রয়েছেন ২৫ জন, ৩১-৪০ বছর বয়সী ২৪ জন।

এছাড়াও নতুন শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে ৪১-৫০ বছর বয়স রয়েছেন ১৭ জন, ৫১-৬০ বছর বয়সী রয়েছেন ২৩ জন এবং ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ১১ জন।

একইসাথে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী ১ জন ও তিনি একজন ষাটোর্ধ্ব পুরুষ বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও জানান, আক্রান্তদের মধ্যে মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা রয়েছেন ৬২ জন আর ঢাকার বাহিরে ৫০ জন। ঢাকার বাহিরে ৫০ জনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জের ১৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকাতে ৬১৮ ও ঢাকার বাহিরে ৪৭৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। গতকাল সর্বমোট ১৪৯৭ টি পরীক্ষা হয়েছে বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর।

আজ বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদফতর আয়োজিত এক অনলাইন ব্রিফিং-এ এমন তথ্য দেয়া হয়।

জানানো হয়, গতকালের চেয়ে ১০৯টি বেশি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে যা গতকালকের তুলনা ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

ব্রিফিং-এ জানানো হয় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রন্ত শনাক্ত হয়েছেন ১১২ জন আর আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছে ১ জন।

করোনা মোকাবেলায় নিয়োজিত ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশসহ অন্যান্যদের জন্য গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ২ লক্ষ ২২ হাজার ২৮৪টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। মোট পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে ৯লক্ষ ১৩ হাজার ৫৭৬ টি।

বলা হয় বর্তমানে পিপিই সরবরাহ করা হয়েছে প্রায় ৪ লক্ষ ৯৫ হাজার। আর বর্তমানে মজুদ আছে ৪লক্ষ ১৮ হাজার ৯৩২টি পিপিই।

দেশে বর্তমানে করোনা শনাক্ত করার জন্য ৭১ হাজার কিট মজুদ আছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

বলা হয়, খুব শীঘ্রই দেশের যেসকল সেন্টারে করোনা পরীক্ষা করা হয় সেখানে প্রতিদিন আরও ১/২ হাজার কিট পাঠানো হবে।

করোনা মোকাবেলায় দেশে বর্তমানে ১১২টি ডেডিকেটেড আইসিইউ আছে। এবং পর্যায়ক্রমে এর পরিধি আরো বৃদ্ধি করা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

ব্রিফিং-এ আরো বলা হয়, ঢাকা মহনগরীর হাসপাতালগুলোতে সর্বমোট ঢাকাতে ১৫৫০ টি আইসোলেশন বেড ও ঢাকা মহানগরীর বাহিরে ও দেশের অন্যান্য হাসপাতালগুলোতে ৬১৪৩ টি বেড সহ মোট ৭৬৯৩ টি আইসোলেশন বেড আছে।

একইসাথে দেশে করোনার জন্য ডেডিকেটেড ৪০টি ডায়ালাইসিস সেন্টার আছে বলেও জনানো হয়।

ডেস্ক রিপোর্ট : অন্যদিনের মতো স্বাভাবিকভাবেই তিনি নামাজ শুরু করেন। প্রথম রাকাত শেষও করেন। বিপত্তি দেখা দেয় দ্বিতীয় রাকাতের সময়। ওই সময় তীব্র ভূমিকম্প শুরু হয়। ভূমিকম্পের ঝাঁকুনিতে নিজেকে রক্ষা করতে না পেরে অনেক মুসল্লি নামাজ ছেড়ে চলেও যান। কিন্তু তিনি ইমাম, তিনি নামাজ নামাজ ছাড়েননি। নামাজ চালিয়ে যেতে থাকেন। যদিও ইসলামি বিধানমতে তার নামাজ ছেড়ে দেওয়ার অনুমতি ছিল।

এমনই একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ব্রিটেনভিত্তিক জনপ্রিয় ইসলামি ওয়েবসাইট ‘ইলমফিড.কম’। তবে ভিডিওটি ইন্দোনেশিয়ার কোন মসজিদের আর ইমাম সাহেবের নাম পরিচয় কিছুই প্রকাশ করা হয়নি।

প্রকাশিত ১৪ মিনিট ১৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সাজানো-গোছানো একটি মসজিদে ইমাম সাহেব নামাজ পড়াচ্ছেন স্বাভাবিকভাবে। নামাজের দ্বিতীয় রাকাতে সূরা ফাতেহার পড়ার শেষ দিকে হঠাৎ করে ভূমিকম্পন শুরু হয়। ভূমিকম্পের তীব্রতায় ইমাম সাহেবের পেছন থেকে কয়েকজন মুসল্লি নামাজ ছেড়ে দৌঁড়ে চলেও যান। কিন্তু ইমাম সাহেব অনড়, তিনি নামাজ চালিয়ে যেতে থাকেন। ভূমিকম্পের মাত্রা বাড়তে থাকলে তিনি নিজেকে রক্ষায়, পাশের দেয়ালে হাত রেখে নিজেকে সামাল দেন, তার পরও তিনি তিনি নামাজ ছাড়েননি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/06/1533537965943.jpg

ভূমিকম্পের সময় তিনি তেলাওয়াত করেন সূরা বাকার ২৫৫ নম্বর আয়াত। ওই আয়াতটি আয়াতুল কুরসি নামে প্রসিদ্ধ। তেলাওয়াতকৃত আয়াতে অর্থ হলো- ‘আল্লাহ ছাড়া অন্য কোনো উপাস্য নেই, তিনি জীবিত, সবকিছুর ধারক। তাকে তন্দ্রাও স্পর্শ করতে পারে না এবং নিদ্রাও নয়। আসমান ও জমিনে যা কিছু রয়েছে, সবই তার। কে আছে এমন, যে সুপারিশ করবে তার কাছে তার অনুমতি ছাড়া? দৃষ্টির সামনে কিংবা পেছনে যা কিছু রয়েছে সে সবই তিনি জানেন। তার জ্ঞানসীমা থেকে তার কোনো কিছুই পরিবেষ্টন করতে পারে না, কিন্তু যতটুকু তিনি ইচ্ছা করেন। তার সিংহাসন পরিবেষ্টন করে আছে সমগ্র আসমানও জমিন। আর সেগুলোকে ধারণ করা তার পক্ষে কঠিন নয়। তিনিই সর্বোচ্চ এবং সর্বাপেক্ষা মহান।’

এই আয়াতটি তেলাওয়াত করার সময় ইমাম সাহেব আয়াতের প্রথমাংশ ‘আল্লাহু লা ইলাহা ইল্লাহুয়াল হাইয়্যুল কাইয়্যূম’ (আল্লাহ ছাড়া অন্য কোনো উপাস্য নেই, তিনি জীবিত, সবকিছুর ধারক) কান্নাবিজড়িত কন্ঠে পাঁচ-পাঁচবার তেলাওয়াত করেন। এরই মাঝে ভূমিকম্পের তীব্রতা কমে আসতে থাকে। নামাজ ছেড়ে যাওয়া মুসল্লিরাও চলে আসেন।

আয়াতুল কুরসি মুসলমানদের মাঝে ব্যাপকভাবে পঠিত একটি আয়াত। এতে সমগ্র মহাবিশ্বের ওপর আল্লাহর জোরালো ক্ষমতার কথা বর্ণনা করা হয়েছে। এ আয়াত পাঠে অসংখ্য সুফল পাওয়া যায়।

ওয়েসবাইট ইলমফিড.কম ভিডিওটি শেয়ার করার পর তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। অনেক মন্তব্যকারী এটিকে ঈমানের পরীক্ষা বলে আখ্যায়িত করেছেন। অনেকে ইমাম সাহবেরে মনোবলের প্রশংসা করে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। কেউ বলেছেন, আল্লাহর প্রতি বিশ্বাসের এক অনন্য দৃষ্টান্ত এটা। এমন প্রশ্নাতীত বিশ্বাসের জন্য আল্লাহ তাকে পুরস্কৃত করুন।

উল্লেখ্য, ইন্দোনেশিয়ার লম্বক দ্বীপে রোববার (৫ আগস্ট) রাতের শক্তিশালী ভূমিকম্পে কমপক্ষে ৯০ জনের প্রাণহানী হয়েছে। এছাড়া কয়েকশ’ মানুষ আহত হয়েছেন। রিখটার স্কেলের ৭ মাত্রার এ ভূমিকম্পে হাজার হাজার ভবন ভেঙে পড়েছে এবং বন্ধ হয়ে গেছে বিদ্যুৎ যোগাযোগ।

ডেস্ক প্রতিবেদন : খেলা চলাকালীন ব্যাটসম্যানকে ঘুঁষি লাথি মেরে ক্রিকেট থেকে আজীবন নির্বাসিত হলেন বার্মুডার উইকেট কিপার জেসন অ্যান্ডারসন। বার্মুডার জার্সি গায়ে ১৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন এই ক্রিকেটার।

বার্মুডাতে একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্টের খেলা চলছিল। ‘চ্যাম্পিয়নস অব চ্যাম্পিয়নস’, এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় মুখোমুখি হয়েছিল ক্লীবল্যান্ড কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব ও উইলো কাটস ক্রিকেট ক্লাব। জেসন অ্যান্ডারসন ওই ম্যাচে উইকেট কিপিং করছিলেন ক্লীবল্যান্ড কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে।

খেলা চলাকালীন একটি ওভার শেষে হঠাৎ উইলো কাটস ক্রিকেট ক্লাবের ব্যাটসম্যান জর্জ ও’ব্রায়েনকে পিছন থেকে ঘুঁষি মারেন জেসন অ্যান্ডারসন। রেগে গিয়ে ব্যাট নিয়ে অ্যান্ডারসনের দিকে তেড়ে যান জর্জও। সঙ্গে সঙ্গে দৌড়ে আসেন ফিল্ডিং দলের আরও খেলোয়াড়রা। ছুটে আসেন আম্পায়রাও। কিন্তু কিছুতেই ঝগড়া থামাতে পারেননি তাঁরা। ধাক্কাধাক্কিতে জর্জ মাটিতে পরে গেলেও তাঁর মাথায় লাথি মারতে দেখা যায় জেসন অ্যান্ডারসনকে। অবস্থা নিয়ন্ত্রণে আনতে মাঠের সাপোর্টিং স্টাফদের ডাকেন আম্পায়র। মাঠে আসেন দুই ক্লাবের কর্তা, পুলিস এবং অ্যাম্বুল্যান্সও। কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ থাকে খেলা।

এরপর ক্লীবল্যান্ডের সভাপতি  অ্যান্ডারসনকে মাঠ ছাড়তে বলেন। ঘটনার তদন্ত করে বার্মুডা ক্রিকেট বোর্ড লেভেল ৪ অনুযায়ী অ্যান্ডারসনকে দোষী সাব্যস্ত করে তাঁকে ক্রিকেট থেকে আজীবন নির্বাসিত করার সিদ্ধান্ত নেয়। অ্যান্ডারসনের দিকে ব্যাট তাক করে মারতে গিয়েছেন জর্জও। তাই তাকেও কিছুদিনের জন্য ৫০ ওভারের ক্রিকেট থেকে নির্বাসনের কথা জানিয়েছেন বার্মুডা বোর্ড।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মুসলমানদের পবিত্রতম স্থান কাবা শরিফ ঘিরে থাকা মসজিদ আল-হারামে একটি ক্রেন ভেঙে পড়ে অন্তত ১০৭ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে সৌদি সরকার। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও ২৩৮ জন।

শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে প্রচণ্ড ঝড়ো হাওয়া ও ভারি বৃষ্টিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রাতে সৌদি সিভিল ডিফেন্স টুইটারে এ তথ্য প্রকাশ করে।

রয়টার্স জানিয়েছে, সিভিল ডিফেন্স অথরিটির মহাপরিচালক জেনারেল সুলাইমান আল আমর আল-ইখবারিয়া টেলিভিশনকে ২৩৮জন আহত হওয়ার কথা বলেছেন।

তিনি জানান, আহত ও নিহত সবাইকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। দুর্ঘটনা স্থলে আর হতাহত কেউ নেই। ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টিতে গাছ উপড়ে গেছে, আঘাত করেছে ক্রেন থাকা এলাকায়ও।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মসজিদুল হারামের চতুর্থ তলায় ক্রেনটি ধসে পড়ে। মসজিদুল হারামের বর্ধিতকরণ গত বছর থেকেই শুরু করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। হজের সময় মানুষের স্থান সংকুলান না হওয়ায় মসজিদুল হারাম আরও চার লাখ বর্গমিটার বাড়ানো হচ্ছে। এখানে এক সাথে ২২ লাখ হাজী এখানে নামাজ পড়তে পারবেন।

মক্কায় অবস্থানরত বাংলাদেশ হজ মিশনে কর্মরত অফিসার আহাদ শামিম জানান, নিহতদের মধ্যে কোনো বাংলাদেশী নেই। তবে আহতদের মধ্যে ২৮ জন বাংলাদেশী রয়েছেন। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক কেউ নেই এবং সবাই মক্কার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মক্কা-মদীনার মসজিদ কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র বিবৃতিতে জানান, ক্রেনটি যেখানে ধসে পড়ে সেখান দিয়ে মুসল্লিরা কাবার চারদিক তাওয়াফ (প্রদক্ষিণ) করে ও হজযাত্রীরা সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যে সায়ী (হাঁটাচলা) করে।

mecca-accidentসামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ছবিতে মুসল্লিদের রক্তাক্ত দেহ ও ছাদ ভেদ করে ক্রেনের একটি ভগ্নাংশ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। মসজিদের পূর্ব অংশে ক্রেনটি ধসে পড়েছে। গত সপ্তাহ থেকে সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থানে শক্তিশালী বালু ঝড় বইছে।

কাবা ঘরকে ঘিরে পৃথিবীর সবেচেয়ে বড় এ মসজিদ মুসলমানদের কাছে সবচেয়ে পবিত্র স্থান। সারা পৃথিবীর মানুষ কাবার দিকে মুখ করে নামাজ আদায় করে থাকে।

এদিকে মক্কার গভর্নর খালেদ আল ফয়সাল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন৷ হারাম শরিফের সম্প্রসারণ প্রকল্পের ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার বকর বিন লাদেনকে দ্রুত বাদশাহর সামনে হাজির হওয়ার জন্য রাজকীয় আদেশ জারি করা হয়েছে।

সৌদি আরবে চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর সারা পৃথিবী থেকে ৩০ থেকে ৪০ লাখ মানুষ মক্কায় হজ পালনের জন্য যায়। বাংলাদেশ থেকে এবার এক লাখ এক হাজার মানুষ হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার কথা রয়েছে। হজ মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সম্মেলন।

https://youtu.be/SqxwoQLpC0A

ডেস্ক প্রতিবেদন : কামড়াতে বেশ ভালোবাসেন তিনি। খাবার-দাবারতো বটেই, মাঝে মধ্যে ফুটবল মাঠেও চলে তার দাঁতের কারিকুরি। সর্বশেষ ব্রাজিল বিশ্বকাপে দেখা গিয়েছিল তার কামড়কাণ্ড। যেখানে ইতালীয় ডিফেন্ডার জর্জিয় কিয়েলিনিকে কামড়েছিলেন তিনি। যার জন্য বড় শাস্তিই ইতোমধ্যে ভোগ করেছেন লুইস সুয়ারেজ। এরপর বার্সেলোনার আসার পর বেশ ঘটা করেই এই উরুগুয়েন ফরোয়ার্ড ঘোষণা দেন, ‘আর কামড়াবো না’।

কিন্তু সেই কথা কি তিনি রাখতে পারছেন। আর একটু হলেতো তিনি মেসির বুকেই দাঁত বসিয়ে দিতেন। কি বাঁচা বেঁচেই না গেছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার! যদিও তা নিছক কৌতুক করেই।

ঘটনাটি ঘটেছে উয়েফার বর্ষসেরা পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে।  যেখানে লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ছাড়াও ওই অনুষ্ঠানে পুরস্কারের দাবিদার ছিলেন সুয়ারেজও। সেখানে উয়েফা বর্ষসেরা হিসাবে মেসির নাম ঘোষণা দিতেই ঘটনাটি ঘটতে যাচ্ছিল।

মুখ হা করে মেসির দিকে কামড় দেয়ার ভঙ্গিতে এগিয়ে আসেন সুয়ারেজ।  হাসতে হাসতে একটু পিছিয়ে গিয়ে নিজেকে রক্ষা করেন লিওনেল মেসি। প্রথম দিকে এমন দৃশ্যে সবাই ভড়কে গিয়েছিল। তবে পরে বোঝা যায়, বিষয়টি মজা করেই করেছেন সুয়ারেজ।

কামড় ও বর্ণবাদী আচরণের কারণে সুয়ারেজ বেশ আলোচিত। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চেলসি ডিফেন্ডার ইভানোভিচকে হাতে কামড় দিয়ে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন বেশকটি ম্যাচ। ম্যানইউর ফরাসি ডিফেন্ডার প্যাট্রিক এভরাকে নিগ্রো বলেও পেয়েছিলেন শাস্তি। তবে ক্যারিয়ারের বড় শাস্তিটা তিনি পেয়েছেন ব্রাজিল বিশ্বকাপে কিয়েলিনির কাঁধে কামড় দিয়ে।

https://youtu.be/gV0mRWSmWH4

ডেস্ক প্রতিবেদন : বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আশরাফুল। টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করার রেকর্ডের অধিকারী এই সাবেক অধিনায়ক। এবার আশরাফুলের নামের সাথে নতুন পরিচয় যুক্ত হলো মডেল এবং অভিনেতা হিসাবে।

বর্তমানে বিপিএলের ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারির জন্য সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ রয়েছেন আশরাফুল। ব্যস্ততাহীন এই সময়ে আমেরিকা প্রবাসী কণ্ঠশিল্পী সোমা এ রহমানের একটি নতুন গানে মডেল হয়েছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

মিউজিক ভিডিও নিয়ে আশরাফুল বলেন, কণ্ঠশিল্পী সোমার সাথে আমার পরিচয় গানের মাধ্যমেই। মিউজিক ভিডিওতে মডেল হওয়ার অফার পাওয়ার পর মিউজিক ভিডিওর গল্পটি শুনলাম। গল্প শুনে ভাল লাগলো আর রাজি হয়ে গেলাম।

অন্যদিকে গানটি প্রসঙ্গে কণ্ঠশিল্পী সোমা এ রহমান বলেন, এটা আমার জন্য খুব ভালোলাগার বিষয় যে আমার প্রিয় একজন ক্রিকেটার আমার গানে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। গানের অনুষ্ঠানেই তিনি আমার গান শুনে ভালোলাগার কথা বলেন, পরবর্তীতে তাকে কাজটির অফার করি।

অপেশাদার ক্রিকেট খেলতে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল এখন আমেরিকাতে অবস্থান করছেন। চলতি বছরের ডিসেম্বরে আবারও ক্রিকেটে ফিরে আসার জন্য পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু করবেন তিনি।

https://youtu.be/AbvWfWykOV8

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিাত হচ্ছে ‘আশিকি’ নামের ছবি। এতে কলকাতার নায়ক অঙ্কুশ হাজারর বিপরীতে কাজ করছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া।

এরইমধ্যে ইউটিউবে প্রকাশ হয়েছে ‘আশিকি’, ও ‘মেয়েদের মন বোঝে’ শিরোনামে ছবির দু’টি গান। গানগুলো বেশ আলোচনায় এসেছে। এবার ধারাবাহিকতায় প্রকাশ হলো ‘বৃষ্টি ভেজা’ নামে আরো একটি গান। আগের দুটি গানের মতোই দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে এই গানটিও। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ পাওয়া ভিডিও গানটি এখন পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার বার দেখা হয়েছে।

তবে আলোচনার পাশাপাশি এই গানটির ভিডিও নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে। ভিডিওটির নিচে বেশ কয়েকজন দর্শক গানের চিত্রায়ণের একঘেয়েমিতার প্রশ্ন তুলেছেন। সেইসাথে একই ধাঁচের সুর-তাল ও পোশাক-পরিচ্ছদের বিষয়েও আপত্তি তুলেছেন অনেকে।

এর আগে ‘মেয়েদেন মন বোঝে’ গানটির ভিউয়ার ছিল প্রায় সোয়া তিনলাখ। ‘তোর আশিকি’ ছুয়েছিল সাড়ে তিন লাখের কোঠা।

আশিকি ছবিটি পরিচালনা করছেন আবদুল আজিজ ও কলকাতার অশোক পতি। জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে ছবিটি প্রযোজনা করছে কলকাতার এসকে মুভিজ। কোরবানির ঈদে ছবিটি মুক্তি পাবে।

দেখুন ‘বৃষ্টি ভেজা’ গানের ভিডিও…

ক্রীড়া ডেস্ : তারকা স্প্রিন্টার উসাইন বোল্টকে খুন করতে চাইনিজ সাংবাদিককে টাকা দিয়েছেন আমেরিকার জাস্টিন গ্যাটলিন! গ্যাটলিনের বিপক্ষে এমন অভিযোগ এনেছেন জামাইকান তারকা। বহুল আলোচিত বোল্ট-গ্যাটলিন দ্বৈরথ শেষে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে মজা করে এই কথা বলেন উসাইন বোল্ট।

ক্যামেরাম্যানের আঘাতে কোন ইনজুরি হয়েছে কিনা এই প্রশ্নে বোল্ট বলেন, আমি আসলে ক্যমেরাম্যানের দ্বারা আঘাত পাইনি। যে গুঞ্জন আমি তৈরি করতে চাচ্ছি, গ্যাটলিন তাকে টাকা দিয়েছে আমাকে খুন করার জন্য। কিন্তু আমি ভালো আছি তাই সব মেনে নিয়েছি।

বোল্টের এই কথা শুনার পর সঙ্গে সঙ্গেই গ্যাটলিনও মজা করে বলেন, আমি আমার টাকা ফেরত চাই। কারণ সে তার কাজ ঠিক মত শেষ করতে পারে নাই।

এরপর বোল্ট মজা করে আরও বলেন, আমি আমার পায়ের ইনস্যুরেন্স করিনি। তবে এ ঘটনার পর আমি ভেবেছি এটা করতে হবে।

তাৎক্ষনিক কি প্রতিক্রিয়া হয়েছিল জানতে চাওয়ায় বোল্ট বলেন, তিনি আমাকে মেরেই ফেলতে চেয়েছিলেন। কি ঘটল কিছুই বুঝতে পারিনি তখন। তবে তিনি সবচেয়ে খারাপটা পেয়েছেন। তাই আমি দেখেছি তিনি ঠিক আছেন কিনা। তিনি যতবার পারেন ততবার আমাকে দুঃখিত বলেছেন। তার মাথায় আঘাত লেগেছে। আমার সামান্য কেটে গেছে তবে আমি ঠিক আছি।

এই ঘটনায় অবশ্য সেই ক্যামেরাম্যানের তেমন দোষ ছিলনা। দুচাকার বাহনে চড়ে বোল্টকে ভিডিও করতে করতে কখন ক্যামেরা লাইনে চলে আসেন দেখতে পাননি। খুঁটির সাথে আঘাত লেগে পিছলে পরেন বোল্টের উপর। আর তাতে হুমড়ি খেয়ে উল্টে পরে যান বোল্ট। তবে স্বস্তির কথা কোন ইনজুরিতে পড়েননি এই জামাইকান তারকা।

https://youtu.be/bO-zNK3EGso