২৭শ’ কিমি. পাড়ি দিয়ে অসুস্থ ছেলের কাছে মা

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক : করোনাভাইরাসের প্রকোপে গোটা ভারত যখন লকডাউনে, তখন অসুস্থ ছেলেকে দেখতে ২ হাজার ৭০০ কিলোমিটার পাড়ি দিলেন মা। পঞ্চাশ বছর বয়সী মা সিলাম্মা ভাসান ভারতের কেরালা রাজ্য থেকে ১১ এপ্রিল রওনা দেন।

তিনি তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র ও গুজরাট রাজ্য ঘুরে ১৪ এপ্রিল রাজস্থানে অসুস্থ ছেলের কাছে পৌঁছান।

ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, সিলাম্মার ছেলে অরুণ কুমার যোধপুরে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সে (বিএসএফ) কর্মরত। তিনি মায়োসিটিসে (পেশির সমস্যা) ভুগছিলেন। অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় তাকে যোধপুরের হাসপাতাল এআইআইএমএসে ভর্তি করতে হয়। সেখান থেকেই এক চিকিৎসক অরুণের গুরুতর অসুস্থতার কথা জানিয়ে তার পরিবারের কাছে খবর পাঠান।

খবর পেয়েই আর মন মানেনি মায়ের। প্রথমে চেষ্টা করেন কোনোভাবে ছেলেকে নিজের রাজ্যে আনা যায় কিনা। কিন্তু তা সম্ভব হয়নি। শেষে ঠিক করেন যেভাবেই হোক নিজেই যাবেন ছেলের কাছে। লকডাউনের কারণে কোনো যানবাহন চলছে না দেশজুড়ে। তাই গাড়ি চালিয়েই ২ হাজার ৭০০ কিলোমিটার দূরত্ব পার করবেন বলে ঠিক করেন তিনি।

সিলাম্মার সঙ্গী হন তার পুত্রবধূ ও এক আত্মীয়। চরম উৎকণ্ঠায় তিন দিন ধরে দীর্ঘ পথ পার হয়ে ছেলের কাছে পৌঁছে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন মা। সুস্থ হয়ে ওঠার খবরে আপাতত নিশ্চিন্ত মা। কয়েক দিন আগেই লকডাউনে আটকে পড়া ছেলেকে অন্ধ্র প্রদেশ থেকে ফেরাতে স্কুটি চড়ে প্রায় ১৪০০ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে নজরে আসেন তেলেঙ্গানা রাজ্যের রাজিয়া সুলতানা।

শেয়ার করুন