সালমান খানকে খুনের পরিকল্পনা! কি হলো শেষে?

প্রকাশিত

বলিউডের ভাইজান খ্যাত সুদর্শন সালমান খানকে নাকি বহু দিন ধরে খুন করার চেষ্টা করা হচ্ছে? জানুয়ারী থেকে শুরু হয়েছিল নজরদারিতে রেখে পরিকল্পনামাফিক খুনের চেষ্টা করে আসছিল রাহুল আলিয়াস সাঙ্ঘি ওরফে বাবা আলিয়াস সুন্নি।

কোথায় যেতেন সালমান, কখন বাড়িতে থাকতেন, কার সাথে কখন মিট করতেন, বান্দ্রার বাড়ি- সবই নজরে রাখত পরিকল্পনাকারীরা। তবে শেষ পর্যন্ত পুলিশের জালে দুষ্কৃতীরা৷ ১৫ অগাস্ট ভারতের উত্তরাখন্ড থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বাবা আলিয়াস সুন্নিকে। জিজ্ঞাসাবাদের সময় উঠে আসে রাজস্থানের ভিওয়ানির বাসিন্দা রাহুল সালমানকে খুনের পরিকল্পনায় জড়িত।

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি ফরিদাবাদের রেশন ডিলার প্রবীনকে খুনের অপরাধে গ্রেফতার করা হয় রাহুলকে। গ্রেফতারির পর জেরার সময়ই প্রকাশ্যে আসে সালমানকে খুনের পরিকল্পনা।”

পানভেলের ফার্মহাউস থেকে করোনাকালীন বিরতি শেষে মুম্বাই ফিরেছেন সালমান খান। লকডাউন থেকে ফেরার পর বলিউড ভাইজানের খানের তালিকায় ছিল ‘রাধে ইওর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’, ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ এবং ‘টাইগার’ সিরিজের তৃতীয় ছবি। গুঞ্জন ছিল ‘রাধে’ দিয়ে শুটিং সেটে ফিরছেন তিনি। তবে তা হচ্ছে না। জানা গেল, ‘কিক-২’ দিয়ে সিনেমার শুটিং শুরু করতে চলছেন সালমান খান।

কিক-২’ ছবির স্ক্রিপ্ট তৈরি। কাস্টিংও চূড়ান্ত হয়েছে। প্রথম ছবির মতো এখানেও সালমানের বিপরীতে দেখা যাবে জ্যাকলিনকে। এছাড়া এই সিক্যুয়েলের জন্য পরিচালক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা নতুন করে বেছে নিয়েছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিকেও। এখন শুধু শুটিং সেটে ফেরার অপেক্ষায়।

শেয়ার করুন