রোটারী ক্লাব অব বগুড়ার উদ্যোগে বিশ্ব পোলিও দিবস ২০২০ উদযাপন

প্রকাশিত

ডা. জোন্স সালকের জন্মদিনকে স্মরণে রেখে বিশ্বজুড়ে বিশ্ব পোলিও দিবস পালন করা হয়। বিশ্ব পোলিও নির্মূল কর্মসূচির (GPET) উদ্যোগে ১৯৯৮ সালে অক্রিয়াশীল ও লাইভ পোলিও টিকা কর্মসূচি শুরু হয়।

রোটারি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনাইটেড স্টেটস্রে রোগ নিয়ন্ত্রণ এবং প্রতিরোধ সংস্থা, ইউনিসেফ, বিল এবং মিলিন্ডা গেটস্ ফাউন্ডেশন এবং বিভিন্ন দেশের সরকার এই কর্মসূচিতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছে। সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও প্রতি বছর ২৪ অক্টোবর শনিবার বিশ্ব পোলিও দিবস পালিত হয়।

তারই ধারাবাহিকতায় রোটারী ক্লাব অব বগুড়ার উদ্যোগে বিশ্ব পোলিও দিবস উপলক্ষে শনিবার বেলা ১১টায় বগুড়া জিলা স্কুল থেকে একটি র‌্যালীর আয়োজন করা হয়।

র‌্যালীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেন মিশু। আরও উপস্থিত ছিলেন রোটারী ক্লাব অব বগুড়ার পোলিও কমিটির চেয়ারম্যান রোটা. এম এম রুবেল তালুকদার, ক্লাব সেক্রেটারী রোটা. রেজাউল হক, পাস্ট প্রেসিডেন্ট রোটা. মামদুদুর রহমান শিপন, আইপিপি রোটা. মোরশিদা খাতুন, পিপি রোটা. মোস্তাফিজার রহমান, প্রেসিডেন্ট ইলেক্ট রোটা. সৈয়দ আহম্মেদ কিরণ, পিপি রোটা. প্রকৌশলী মো. সাহাবুদ্দীন সৈকত, রোটা. শাহীন কাদির, রোটা. নবিউল ইসলাম নয়ন, রোটা. বদরুদ্দোজা চৌধুরী, রোটা. সাখাওয়াত হোসেন টমাস, রোটা. রফিকুল ইসলাম বুলবুল, রোটা. সোহরাব হোসেন উজ্জল, রোটা. মেহেদী হাসান চৌধুরী, রোটা. রাশেদুর রহমান হান্নান, রোটা. আবু তাহের মেসবাহ, রোটা. চন্দন কুমার রায়, রোটা. সানাউল হক দুলাল, রোটা. মঞ্জুর কাদের, রোটা. মাসুদ করিম, রোটা. মাহবুব সাঈদী প্রিন্স, রোটা. এএইচএম শফিকুল আলম মামুন, অফিস সহকারী মো. হাবিব প্রমুখ। র‌্যালী শেষে পোলিও দিবস উদ্যাপন কমিটির চেয়ারম্যান রোটা. এম এম রুবেল তালুকদার-এর কনফারেন্স রুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত একজন শিশুও পোলিও আক্রান্ত থাকে, ততক্ষণ পুরো দেশের শিশুদের সংক্রমণের ঝুঁকি রয়ে যায়। – বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন