মিনিটেই হবে আন্তঃব্যাংক লেনদেন

প্রকাশিত

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : ব্যাংক টু ব্যাংক লেনদেনে দীর্ঘ অপেক্ষার সময় শেষ। এখন মিনিটেই সম্পন্ন হবে আন্তঃব্যাংক লেনদেন। এই কার্যক্রম সম্পন্ন করে চালু করা হলো রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলম্যান্ট (আরটিজিএস)। ফলে অত্যাধুনিক এ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দেশীয় ও বৈদেশিক মুদ্রায় বড় অঙ্কের আন্তঃব্যাংক লেনদেনগুলো তাৎক্ষণিকভাবে সম্পন্ন করা যাবে।

বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে আরটিজিএসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) আর্থিক এবং বিশ্বব্যাংকের কারিগরি সহায়তায় আরটিজিএস বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এর ফলে ১ লাখ টাকা বা তার বেশি আন্তঃব্যাংক লেনদেন দ্রুত নিস্পত্তি করা যাবে।

গভর্নর বলেন, আরটিজিএসের মাধ্যমে লেনদেন সহজ ও স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় দ্রুত সম্পন্ন হবে। এর মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন ব্যবসায়ীরা। এখন আর বড় অঙ্কের লেনদেনের ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে না। রেমিট্যান্স প্রেরণকারীরাও এ সেবা পাবেন। তাদের প্রেরিত কষ্টের অর্থ এখন তাৎক্ষণিকভাবে দেশে পাঠাতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, বৈদেশিক মুদ্রায় বড় অঙ্কের আন্তঃব্যাংক লেনদেন তাৎক্ষণিক সম্পন্ন হবে। ফলে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা সহজে দেশের সেকেন্ডারি বন্ড মার্কেটে বিনিয়োগ করতে পারবে।

আতিউর রহমান বলেন, আমাদের ব্যাংকিং লেনদেন এখন বিশ্বমানের হয়েছে। ফাইন্যান্সিংয়ে ইনক্লুশনে আমরা অনেক এগিয়েছি। এখন ডিজিটাল ফাইন্যান্সিং ইনক্লুশনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এই পরিকল্পনায় সহজে সব গ্রাহকের মাঝে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দেওয়া হবে।

আরটিজিএসের সেবাটি ৫৬টি তফসিলি ব্যাংকের মাধ্যমে প্রায় ৯ হাজার শাখায় এবং ৫৫টি ব্যাংকের ৫ হাজারেরও অধিক প্রথমদিন থেকেই এই সেবা পাবে। স্থানীয় মুদ্রার পাশাপাশি পাঁচটি বৈদেশিক মুদ্রার লেনদেন করা যাবে।

গভর্নর আরটিজিএস প্রক্রিয়াটি উদ্বোধনের পর প্রাণ আরএফএল গ্রুপের ১ লাখ টাকা ইউসিবিএল এবং স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের মধ্যে লেনদেন করা হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর নাজনিন সুলতানার সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ব্যাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবুল কাসেম, নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর শাহা ও বিভিন্ন তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা।

শেয়ার করুন