মানবদেহে পরীক্ষামূলকভাবে করোনার টিকা প্রয়োগ

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ বিজ্ঞানীদের তৈরি ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে মানবদেহে প্রয়োগ করা হয়েছে।

মানবদেহে পরীক্ষামূলকভাবে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক প্রথমবারের মতো মানবদেহে করোনাভাইরাসের পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেন।

যুক্তরাজ্যে দুই জনের শরীরে প্রথমবারের মতো এ ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হলো। এই ভ্যাকসিন সফল হলে বড় ধরনের এক বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেয়ে যাবে গোটা বিশ্ব।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে জানা যায়, মোট আটশ জন মানুষ এই পরীক্ষামূলক কাজে স্বেচ্ছায় অংশ নিয়েছেন। এই আটশ জনের মধ্যে অর্ধেককে কভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন দেয়া হবে। আর বাকি অর্ধেককে ম্যানিনজাইটিস প্রতিরোধক দেয়া হবে। তবে স্বেচ্ছায় অংশ নেয়া এই কর্মীরা কেউই জানবেন না কোন ভ্যাকসিন তাদের শরীরে প্রয়োগ করা হচ্ছে, জানবেন শুধু ডাক্তাররা। যেখানে দুই গ্রুপের মানুষের মধ্যে আগামী কয়েকমাসে তুলনামূলক বিচার করে ভ্যাকসিনের কাজ হচ্ছে কি-না তা নির্ধারণ করবেন গবেষকরা।

অক্সফোর্ড বিজ্ঞানীদের মধ্যে গবেষণার নেতৃত্বে থাকা অধ্যাপক সারা গিলবার্ট জানান, তিনি নিশ্চিত করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে এই প্রতিষেধক কাজ করবে।

ইবোলার প্রতিষেধক তৈরিতে দিশা দেখানো গিলবার্ট বলেন, আমি এ ধরনের প্রতিষেধক নিয়ে কাজ করেছি। মার্সের প্রতিষেধক নিয়ে কাজ করেছি। এর কী ক্ষমতা তা জানি। আমার বিশ্বাস, এই প্রতিষেধকের কাজ করবে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইমপেরিয়াল কলেজ লন্ডনের একদল গবেষক সিএইচএডিওএক্স১ এনকোভ-১৯ নামের এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছেন। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্রিটিশ বিজ্ঞানীদের তৈরি এটিই প্রথম ভ্যাকসিন।

শেয়ার করুন