মাটিরাঙ্গায় অধ্যাপকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রকাশিত

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : সহকর্মীদের বিরুদ্ধে জাল ও ভুয়া কাগজপত্র ব্যবহার করে সরকারী তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা আত্মসাতের মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে তদন্তকারী সংস্থাকে হয়রানির করায় মাটিরাঙ্গা সরকারী ডিগ্রী কলেজের ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক দীপক কান্তি চাকমার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক।

দুদক রাঙ্গামাটি সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জিএম আহসানুল কবীর বাদী হয়ে বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে খাগড়াছড়ির জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো: আলমগীর হাসানের বিশেষ ট্রাইব্যুনালে মামলাটি দায়ের করেন। বিচারক মামলাটি আমালে নিয়ে আগামী ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেন।

মামলার এজহারের উদ্বৃতি দিয়ে জেলা দুনীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন মজুমদার জানান, একই কলেজের সহকারী অধ্যাপক (বাংলা) আবুল হোসেন এর বিরুদ্ধে জাল ও ভুয়া কাগজপত্র ব্যবহার করে সরকারী তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেন একই কলেজের ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক দীপক কান্তি চাকমা।

দুদক অভিযোগ আমলে নিয়ে দীর্ঘ তদন্ত শেষে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় এবং মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে তদন্ত সংস্থাসমূহকে হয়রানীর অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৮ (গ ) ধারায় মামলাটি দায়ের করে।

উল্লেখ্য যে, একই ব্যক্তি একই কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মোহাম্মদ নুরুল আফছারের বিরুদ্ধে জাল সনদ ও জাল স্বাক্ষরের মাধ্যমে অবৈধভাবে নিয়োগ নেয়ার অভিযোগ তোলেন। তদন্তে অভিযোগ মিথ্যা প্রমানিত হওয়ায় শৃঙ্খলা বজায় রাখার স্বার্থে অভিযোগকারীর বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়।

শেয়ার করুন