বিশ্বব্যাংকের আশ্বাসে পাতালরেল প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : রাজধানী ঢাকার যানজট নিরসনে পাতালরেল প্রকল্পে বিশ্বব্যাংক বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আর সংস্থাটির এমন আশ্বাসের পরে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের পাশাপাশি পাতালরেল প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একনেক সভায় অংশ নেওয়া পরিকল্পনা কমিশনের এক ঊর্ধতন কর্মকর্তা জানান, আজকের একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী যানজট নিরসনে ঢাকায় মেট্রোরেলের পাশাপাশি পাতালরেল প্রকল্প গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

পাতালরেলে প্রকল্প গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিকল্পনা কমিশনকে নির্দেশনাও দিয়েছেন বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

এ সময় পরিকল্পনামন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ঢাকায় সফররত বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট (পরিচালক) কাইল পিটারস জানিয়েছেন বিশ্বব্যাংক পাতালরেলে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী।

একনেক সভা শেষে মুস্তাফা কামাল পাতালরেল সম্পর্কে বলেন, গত মঙ্গলবার বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট (পরিচালক) কাইল পিটারস দুইদিনের এক সফরে ঢাকা এসেছেন। তার সঙ্গে আমি রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় বৈঠকে মিলিত হই। বিশ্বব্যাংকের আগারগাঁও ঢাকা অফিস থেকে যমুনায় যেতে যানজটের কারণে তার কয়েক ঘন্টা লেগে যায়।

পরে বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমাকে (পরিকল্পনামন্ত্রী) প্রশ্ন রেখে বলেন, আমরা যেখানে (যমুনা) বৈঠক করছি; এটা ঢাকার কোথায়? ঢাকা থেকে কি অনেক দূরে?

পিটারের কথার জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, যমুনা ঢাকার বাইরে নয় এটি ঢাকার প্রাণ কেন্দ্রে! আগারগাঁও ও যমুনা ‍দুটি স্থানই ঢাকার প্রাণ কেন্দ্রে।

পরিকল্পমন্ত্রীর উত্তর শুনে কাইল পিটারস আবারও বলেন, আমি তো জানি বিশ্বব্যাংকের আগারগাঁও অফিস ঢাকার প্রাণ কেন্দ্রে। তাহলে রাজধানীর এক প্রাণ কেন্দ্রে থেকে অপর প্রাণ কেন্দ্রে আসতে এত সময় লাগলো কেনো? আপনাদের যানজট দূর করতে হলে শুধু মেট্রোরেল দিয়ে হবে না পাতালরেলও চালু করতে হবে।

এসময় পরিকল্পনামন্ত্রী কাইলকে বলেন, আপনি যদি অর্থায়নে নিশ্চয়তা দিতে পারেন তবে ঢাকায় পাতালরেল প্রকল্প হাতে নিতে পারি। এর উত্তরে কাইল বলেন, হুয়াই নট! বিশ্বব্যাংক উইল বি সাপোর্ট দিজ প্রজেক্ট!

পাতালরেল প্রকল্প প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ঢাকার যানজট নিরসনে মেট্রোরেলের পাশাপাশি পাতালরেল প্রকল্প হাতে নিতে হবে। পদ্মাসেতু প্রকল্পের মতো এটিও একটি স্বপ্নের প্রকল্প হবে। এই বিষয়ে বিশ্বব্যাংক আমাদের অর্থায়ন করবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী, খুব শিগগিরই সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে দিয়ে এ বিষয়ে সমীক্ষা চালানো হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন