বাসস্ট্যান্ডে ১ কি.মি. ড্রেন নির্মাণ নিয়ে উত্তেজনা

প্রকাশিত

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের নন্দীগ্রাম স্থানীয় বাসস্ট্যান্ডের পার্শে ১ কিলোমিটার ড্রেন নির্মাণ নিয়ে স্থানীয় জনতা, কৃষক ও দোকানীদের মধ্য চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। সোমবার বিকেলে ড্রেন নির্মাণ করতে গেলে ড্রেনের গভীরতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে জনগণ উত্তেজিত হয়ে পড়ে। তখন উত্তেজিত জনতার তোপের মুখে ড্রেন নির্মাণ আপাতত বন্ধ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের স্থানীয় বাসস্ট্যান্ডের পূর্ব পার্শ্বে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কর্তৃপক্ষ যে গভীরতা করে ড্রেন নির্মাণ করছে তাতে করে পানি নিষ্কাসন অসম্ভব।

অনেক কৃষক অভিযোগ করে জানান, বর্ষা মৌসুমে পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় শত শত বিঘা জমির ধান পানিতে নিমজ্জিত থাকে। নতুন ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করলেও গভীরতা এতো কম হচ্ছে যে পানি নিষ্কাশন সম্ভব নয়। সরকার এতো টাকা খরচ করে ড্রেন নির্মাণ করলেও গভীরতা কম হওয়ায় এই ড্রেন কোন কাজে আসবে না।

এদিকে খবর পেয়ে মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার শিমুল শাহ জানান, ড্রেন নির্মাণ প্রকল্পে ৩ ফুট গভীরতা ও ৩ ফুট ৪ ইঞ্চি প্রশস্থ করার বরাদ্দ রয়েছে। মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল বলেন, স্থানীয় জনগণের দাবী তারা যে ড্রেন নির্মাণ করছে তাতে ওই ড্রেনে পানি নিষ্কাশন হবে না। ফলে ওই ড্রেন কোন কাজেই আসবে না। এ নিয়ে স্থানীয় জনতার মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

শেয়ার করুন