প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক:৯ সেপ্টেম্বর ‘দ. কেরাণীগঞ্জের ওসি-দুই ইন্সপেক্টরের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা’ শীর্ষক শিরোনামের প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল।

সংবাদটিতে সঠিক তথ্য প্রকাশিত হয়নি উল্লেখ করে প্রতিবাদে উল্লেখ হয়। নালিশী দরখাস্তে কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন (৫৫), ফার্স্ট ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তুহিন রেজা (৪০), রাহাত ওরফে ডাকাত রাহাত (৩৫), জি এম সারোয়ার (৫৫), দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) শাহাদাত হোসেন, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আশিকুজ্জামান ও অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ জামানকে আসামি করা হয়েছে।

বাদীর দায়েরকৃত নালিশী দরখাস্তটি পিটিশন মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে আদেশ দিয়েছেন আদালত। এতে বলা হয়, আদালত ফৌজদারি কার্যবিধির ২০০ ধারা মতে বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করার পর ৫-৭ নম্বর আসামির দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) শাহাদাত হোসেন, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আশিকুজ্জামান ও অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ জামানের বিরুদ্ধে মামলায় অগ্রসর হওয়ার মতো উপাদান না পেয়ে তাদের অব্যাহতি দেয়।

বাদী তার জবানবন্দিতে ওসি ও ইন্সপেক্টরের সংশ্লিষ্টা সম্পর্কের বিষয়টি গোপন করেছেন। পাশাপাশি আসামিরা সরকারি চাকরি করায় তাদের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কোনো লিখিত পূর্বানুমতি নেয়া হয়েছে এমন কোনো কাগজাদি দাখিল করতে পারেননি।

মামলার অন্য চার আসামিদের বিরুদ্ধে অগ্রসর ও তদন্তের আদেশ দেন। আদালত মামলাটি অনুসন্ধান করতে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানার ওসিকে অথবা তার অধীনস্থ সাব ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার নিচে নয় এমন কর্মকর্তাকে দিয়ে আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে অনুসন্ধান প্রতিবেদন ট্রাইব্যুনালে জমাদানের আদেশ দেন।

শেয়ার করুন