পরিবর্তন করতে হলো নামের বানান!

প্রকাশিত

বিনোদন ডেস্ক : মাস দুয়েক আগে নাম পরিবর্তনের আচানক ঘোষণা আসে ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ফ্রেন্ডস মুভিজ থেকে। ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী-২’ বদলে তারা জানালেন নতুন নাম ‘ক্যাপ্টেন’ এর কথা! পরামর্শটা নাকি এসেছে শাকিব খান এবং সিনেমা পাড়া সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে। কিন্তু কেন? তারা জানান, সবাই বলছে ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী’ কঠিন নাম। ‘ক্যাপ্টেন’ নাম দিলে নাকি ছবিটি পাবলিক খাবে! তাছাড়া ছবিতে শাকিব খানের চরিত্রটাও জাতীয় ক্রিকেট দলের ক্যাপ্টেনের।

নাম পরিবর্তনের এমন হঠাৎ সিদ্ধান্তকে অনেকেই তখন ফেসবুকে মত দিয়েছেন ‘হঠকারি’ সিদ্ধান্ত হিসেবে। সঙ্গে বাধ সাধলেন নায়িকা জয়া আহসান, চিত্রনাট্যকার রুম্মান রশীদ খান আর পরিচালক সাফিউদ্দিন সাফি। জানা গেছে, জয়া তখন শ্যুটিংই বয়কট করেছেন এই ছবির। নাম অপরিবর্তিত থাকবে- এই শর্তে পরিচালক শ্যুটিংয়ে ফিরিয়েছেন জয়াকে। মুচকি হাসলেন চিত্রনাট্যকারও।

সেন্সর বোর্ডে জমা পড়ার আগের পোস্টার

শ্যুটিং শেষে সেন্সরে জমা দেওয়া পর্যন্ত ছবিটির নাম অপরিবর্তিত থাকলেও সম্প্রতি এর নামের বানান পরিবর্তন করতে হলো। সিক্যুয়াল এই ছবিটির নাম ছিল ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী-২’। তবে ‘কাহিনী’ আর ‘কাহিনী’ থাকেনি। সবার অজান্তে হয়ে গেছে ‘কাহিনি’! বানানে পরিবর্তন এনে এখন নাম দাঁড়িয়েছে ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনি-২’।

বানানে কেন সংশোধনী? এমন প্রশ্নে ছবির চিত্রনাট্যকার রুম্মান রশীদ খান জানালেন সেন্সর বোর্ডের কথা। তিনি বলেন , ‘‘সেন্সর বোর্ড আমাদের জানান, বাংলা একাডেমির নতুন সংশোধনীতে ‘কাহিনি’ শব্দের বানানে পরিবর্তন আনা হয়েছে। তাই আমাদের ছবির নামের বানান সংশোধন করতে বলেন।’’ তিনি আরও বলেন, ‘বানান সংশোধন করেছি, এটা বড় কোনও সমস্যা নয়। তবে ভাবতে ভালো লাগছে, আমাদের সেন্সরবোর্ড এখন অনেক সচেতন। নামের বানান পর্যন্ত পর্যবেক্ষন করা হয়! এটা শুভ লক্ষন।’

এদিকে নামের বানান পরিবর্তনের পর সম্প্রতি এই ছবির বেশ ক’টি নতুন পোস্টার প্রকাশ পেয়েছে ফেসবুকে। সেখানে নামের এমন পরিবর্তিত বানান এবং পোস্টারে সস্তা গ্রাফিক্স ডিজাইন দেখে অনেকেই সমালোচনা করছেন। এর বিপরীতে ছবির পরিচালক সাফি উদ্দিন সাফির ভাষ্য, ‘সব সমালোচনার উত্তর মিলবে নভেম্বরে, প্রেক্ষগৃহে।’

সাম্প্রতিক পোস্টার
শেয়ার করুন