নারীদের জন্য অবমাননাকর প্রতীক রাখছে না নির্বাচন কমিশন

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজেদের ভুল স্বীকার করে ভবিষতের কোনো নির্বাচনে নারীদের জন্য অবমাননাকর প্রতীক রাখা হবে না বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেই ভুল শুধরানোর সুযোগ চায় তারা। নারীদের সম্মানজনক প্রতীক দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

বিগত ৩ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের অবমাননাকর প্রতীক দেয়ার প্রতিবাদ জানান অনেক প্রার্থী। আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে আবার কাজ করে সমালোচনার মুখে পড়ে নির্বাচন কমিশন।

পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনে নারী প্রার্থীদের চুড়ি, চকলেট, ভ্যানিটি ব্যাগ, পুতুল মৌমাছিসহ নানা প্রতীক দেয় তারা। এ নিয়ে অনেকের সমালোচনার মাঝে বিএনপির নারী নেত্রীরা প্রতিবাদ জানান নির্বাচন কমিশনে।

জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সম্পাদিকা শিরিন সুলতানা বলেন, চুড়ি, চকলেট, পুতুল এ ধরেনর প্রতীক আমরা মনে করি নারীদের জন্য অবমাননা কর। যেখানে মেয়েরা ক্রিকেট খেলছে সেখানে মেয়েদের প্রতীক কেনো ব্যাট, বিমান, ফুটবল হবে না।

সময় কম থাকায় অসাবধানে এমন ভুল হয়েছে বলে জানান নির্বাচন কমিশন সচিব। ভবিষ্যতে এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনে রাজনৈতিক দলগুলোর পরামর্শ নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, এটি খুব অল্প সময়ের মধ্যে আমাদের করতে হয়েছে। আমি বলবো এটি অসাবধানতাবশত হয়েছে। তারা তাদের দাবির কথা জানিয়েছেন। মাননীয় প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইতিমধ্যে আমাকে লিখিতভাবে নির্দেশ দিয়েছেন, যেনো পরবর্তী নির্বাচনের আগেই এই বিষয়টির সমাধান করা যায়।

পৌর নির্বাচনে নারী এবং সংখ্যালঘু ভোটারদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেবে বলেও জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

শেয়ার করুন