তরুণী ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেফতার

প্রকাশিত

মো. কামরুজ্জামান ভূঁইয়া, নোয়াখালী : নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার হরণী ইউনিয়নে এক তরুণীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে এক ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল চালককে আটক করেছে পুলিশ। ওই তরুণী লক্ষ্মীরের একটি বাসায় গৃহকর্মীর হিসেবে কাজ করতো।

সোমবার দুপুর ৩টায় নির্যাতিতার মামলায় ধর্ষক হেলাল উদ্দিন (৪০)কে গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। সোমবার ভোরে উপজেলার কাজিরটেক থেকে অভিযুক্ত আসামিকে আটক করা হয়।

ধর্ষক হেলাল উদ্দিন হরণী ইউপির কাজিরটেক গ্রামের মাহফুজুর রহমানের ছেলে এবং দ্বীপ উপজেলার হাতিয়ার ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল চালক। অপর আসামি ধর্ষকের সহযোগী পলাতক জামসেদ উপজেলার রহমতপুর গ্রামের বাসিন্দা।

গত শনিবার রাতে উপজেলার হরণী ইউনিয়নের পূর্ব রসুলপুর গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড়ে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। পরে রোববার দুপুরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগীকে বাদী হয়ে হাতিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

হাতিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নির্যাতিতা তরুণী লক্ষ্মীপুরে একটি বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করে। কয়েকদিন আগে বাড়িতে আসে সে।

গত ২৪ অক্টোবর শনিবার রাতে প্রকৃতির ডাকে ওই তরুণী ঘর থেকে বের হলে ওঁৎ পেতে থাকা হেলাল ও জামসেদ তাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে জামসেদের সহযোগিতায় হেলাল তাকে মেঘনা নদী সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

গ্রেফতারকৃত হেলালকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামি জামসেদকে গ্রেফতারে পুলিশ জোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

শেয়ার করুন