জেলখানায় প্রথম রাত চাটাইয়ে কাটিয়েছেন রিয়া

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক:বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত হত্যা মামলায় তদন্তে মাদক সংশ্লিষ্টতায় গ্রেফতার হয়েছেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী।

তাকে মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ টানা তিনদিন ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করে।

পরে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে এ বলি অভিনেত্রীকে বাইকুলা জেলে পাঠানো হয়। ওই দিন রাতেই তার জামিন আবেদন করলে আদালত তা খারিজ করে দেন।

বুধবারও তার জামিন আবেদনের কথা জানানো হয়েছে। যদি তার জামিন না হয়, তাহলে এ জেলেই তাকে ১৪ দিন থাকতে হবে।

অবশ্য এর আগের রাতে রিয়া চক্রবর্তী মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের প্রধান কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। সেখানে তিনি সারা রাত পায়চারী করে কাটিয়ে দেন।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইট্টিন জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে রিয়াকে নারীদের সেলে পাঠানো হয়। সেখানে ১ নম্বর সেলে রাখা হয়েছে।

এখানেই দুপুরে ও রাতে সবজি এবং ডাল রুটি খান। কয়েদিদের শোয়ার জন্য চাটাই আর চাদর দেয়া হয়। সেই চাটাই মাটিতে পেতে শুয়ে রাত কাটালেন বলি অভিনেত্রী রিয়া।

খবরে বলা হয়েছে, গ্রেফতারের পরে রিয়ার মেডিকেল টেস্ট করা হয়৷ তবে টেস্টের বিস্তারিত জানানো হয়নি।

খবরে বলা হয়েছে, রিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাপক তথ্য প্রমাণ পেয়েছে এনসিবি ৷ তবে তার করোনা টেস্ট নেগেটিভ এসেছে।

অন্যদিকে, জেরার মুখে রিয়ার ভাই ও সুশান্তের পরিচারক দীপেশ আগেই জানায় রিয়ার সঙ্গে মাদকচক্রের সংযোগের কথা ৷

এ তথ্যের ওপর নির্ভর করেই নানা অভিযোগে রিয়াকে গ্রেফতার করা হয় ৷ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্যের তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই।

তদন্ত শুরু হওয়ার পর থেকেই একের পর এক তথ্য সামনে উঠে আসতে শুরু করে। বলিউডের মাদকচক্র নিয়েও নানা তথ্য উঠে আসতে থাকে।

সুশান্তের তৎকালীন প্রেমিকা রিয়ার বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ করা হয়। সুশান্তের পরিবার রিয়াকেই দায়ী করেছেন অভিনেতার মৃত্যুর জন্য।

এর পর রিয়াকে জেরা শুরু হতেই রিয়া জানান সুশান্ত মাদক নিতেন। কিন্তু তার কোনো সম্পৃক্ততা নেই মাদকচক্রের সঙ্গে।

তবে এনসিবির জেরার মুখে পড়ে রিয়া জানান তিনিও ড্রাগ নিতেন। মাদক সেবন করতেন নিয়মিত।

শেয়ার করুন