জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, দেশের সামগ্রিক ও টেকসই উন্নয়নের জন্য জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে হবে। সোমবার ঢাকার একটি হোটেলে ইউনিসেফ আয়োজিত জেন্ডার নেটওয়ার্ক মিটিং শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন তিনি।

স্পিকার আরো বলেন, বাংলাদেশের জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক নারী। আর নারীদের উন্নয়ন নিশ্চিত না হলে দেশের টেকসই উন্নয়নও সম্ভব নয়। তাই নারী ক্ষমতায়ন ও জেন্ডার সমতা নিশ্চিত করতে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রণয়নেও নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।

স্পিকার বলেন, নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল। নারীর ক্ষমতায়নকে নিশ্চিতকরণে নারীদের অর্থনৈতিক, সামজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে আরো সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি নারীদের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে আরো অংশগ্রহণের লক্ষ্যে তাদের জন্য শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও আধুনিক প্রযুক্তিগত শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ জেন্ডার সমতা, মাতৃ মৃত্যুহার হ্রাস, শিশু মৃত্যুহার হ্রাসসহ দারিদ্র দূরীকরণের মাধ্যমে সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ইতোমধ্যে অর্জন করেছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন করতে হলেও নারীদের সামগ্রিক উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আরো বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম প্রধান খাত তৈরি পোষাক শিল্প। এই খাতে কর্মরতদের অধিকাংশই নারী। তিনি অর্থনৈতিক উন্নয়ন আরো গতিশীল ও টেকসই করতে তৈরি পোষাক শিল্পসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে কর্মজীবী নারীদের জন্য আবাসন ব্যবস্থা, ডে-কেয়ার সেন্টার স্থাপনসহ অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

স্পিকার এসময়, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবিলায়ও সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে ইউনিসেফ, বাংলাদেশের প্রতিনিধি এডুয়ার্ড বেইগবেডার স্বাগত বক্তব্য রাখেন। ইউনিসেফের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর গীতা রাও গুপ্তা মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

শেয়ার করুন