কোয়ারেন্টাইন না মানায় পুলিশি জেরার মুখে মালয়েশীয় মন্ত্রী

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক:সম্প্রতি বিদেশ সফর শেষে দেশে ফেরার পর বাধ্যতামূলক দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনা না মানায় পুলিশি জেরার মুখে পড়তে চলেছেন মালয়েশিয়ার বৃক্ষরোপণ শিল্প ও পণ্যমন্ত্রী মো. খাইরুদ্দিন আমান রাজালি। বুধবারই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে স্থানীয় পুলিশ।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, গত ৭ জুলাই তুরস্কে ব্যবসায়িক সফর শেষে মালয়েশিয়া ফেরেন মন্ত্রী খাইরুদ্দিন আমান।

তবে ফেরার পর কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনা ভঙ্গ করায় এক হাজার রিঙ্গিত (২০ হাজার ৩৩৬ টাকা প্রায়) জরিমানা করা হয় তাকে। এ নিয়ে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয় মালয়েশীয়দের মধ্যে।

খাইরুদ্দিন আমান শুধু কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনা ভঙ্গ করেছেন তা-ই নয়, মালয়েশিয়ায় সাধারণ মানুষজনের যখন বিদেশ সফর বন্ধ তখন মন্ত্রী কীভাবে বিদেশে গেলেন তা নিয়েও তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে তাদের মধ্যে। মন্ত্রী বলে তাকে খুবই সামান্য জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে দেশটিতে।

গত জুলাইয়ে মালয়েশিয়ায় ভারতফেরত এক ব্যক্তি কোয়ারেন্টাইন না মানায় তাকে পাঁচ মাসের জেল ও ১২ হাজার রিঙ্গিত জরিমানা করা হয়।

এমনকি ৭২ বছরের এক বৃদ্ধা কোয়ারেন্টাইনের সময় বাইরে দুপুরের খাবার খেতে যাওয়ায় তাকেও একদিনের জেল ও আট হাজার রিঙ্গিত জরিমানা গুনতে হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই মালয়েশীয় পণ্যমন্ত্রীর ছাড় পাওয়ার অভিযোগ তুলে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এক্ষেত্রে কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনা ভঙ্গের অভিযোগ ওঠায় নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, আয়ারল্যান্ডের কৃষিমন্ত্রী, ঘানার বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রীর পদত্যাগের বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন কেউ কেউ।

শেয়ার করুন