আজ বিশ্ব এইডস দিবস

প্রকাশিত

ডেস্ক প্রতিবেদন : বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ ১ ডিসেম্বর পালন করা হচ্ছে বিশ্ব এইডস দিবস। এ বছর বিশ্ব এইডস দিবস পালনের ২৮ বছর পূর্তি হচ্ছে। ১৯৮৮ সাল থেকে আন্তর্জাতিকভাবে এই দিনটি ব্যাপক উৎসাহ ও গুরুত্বের সঙ্গে পালিত হয়ে আসছে।

২০১১ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত বিশ্ব এইডস দিবসে প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারিত হয়েছে, শূন্য লক্ষ্যমাত্রা অর্জন।  এইচআইভি বা এইডস সংক্রমণের বিশ্ব প্রেক্ষাপটে এ বিষয়টির গুরুত্ব অপরিসীম। এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ঝঁকিপূর্ণ ও এইচআইভি আক্রান্ত জনগোষ্ঠীর জন্য ঝুঁকি ও ক্ষতি হ্রাস, অত্যাবশ্যকীয় সেবা, চিকিৎসা সেবা ও সহযোগিতার নিশ্চিত করা এবং গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে এইডস দিবস পালন তাৎপর্যময়।

বিশ্ব এইডস দিবস উপলক্ষে আজ স্বাস্থ্য অধিদফতরের আওতাধীন ন্যাশনাল এইডস এসটিডি প্রোগ্রাম (এনএএসপি) সারাদিন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। সকাল সাড়ে আটটায় রয়েছে জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে শোভাযাত্রা। শেষ হবে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে গিয়ে। এরপর সেখানে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মো. নাসিম, প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্যসচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. দীন মো. নূরুল হক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের জনগোষ্ঠীর মধ্যে এইচআইভি সংক্রমণের হার এখনও ০.১ শতাংশের নিচে এবং ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর মধ্যে ১ শতাংশেরও কম। ২০১৪ সালে বাংলাদেশে নতুন এইচআইভিতে আক্রান্ত হয়েছে ৪৩৩ জন এবং এইডস রোগে মৃত্যু হয়েছে ৯১ জনের। অন্যদিকে ১৯৮৯ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৩ হাজার ৬৭৪ জন এবং এইডসে মৃত্যু হয়েছে ৫৬৩ জনের।

ইউএনএইডস-এর তথ্যমতে বাংলাদেশে বর্তমানে অনুমিত ৮ হাজার ৯০০ ব্যক্তি এইচআইভিতে সংক্রামিত এবং যারা নতুন সংক্রামিত হয়েছে তাদের শতকরা ৩০ ভাগ নারী (গৃহিনী) এবং ৩১ শতাংশ অভিবাসী ও অতীতে যারা অভিবাসী ছিলেন এমন।

শেয়ার করুন